অধ্যক্ষের বাণী

আসসালামু আলাইকুম

শহর ও গ্রামের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শিক্ষার গুণগত মানের পার্থক্য দূরীকরণের লক্ষ্যে, ঐতিহ্যবাহী মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার গাঁওদিয়া ইউনিয়নের শামুরবাড়ি গ্রামে ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ‘মাহমুদা খানম মেমোরিয়াল একাডেমি’। বিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের মেধা ও অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে ইতিমধ্যেই বিদ্যালয়টি মুন্সিগঞ্জ জেলার একটি অন্যতম প্রতিশ্রুতিশীল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

তারই ধারাবাহিকতায় স্থানীয় চাহিদা ও আরও পূর্ণাঙ্গ ও বৃহৎ পরিসরে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে ১০০ শতাংশ জায়গায় পাঁচতলা ভবনে ‘ইউনুছ খান মেমোরিয়াল কলেজ’ ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। যা পর্যায়ক্রমে ৬০ বিঘা জায়গায় ঘোলতলী, লৌহজং, মুন্সীগঞ্জে বৃহৎ পরিসরে ২০২১ সালে স্থানান্তর করা হবে।

অপূর্ব ও নান্দনিক পরিবেশে দক্ষ ও দায়িত্বশীল শিক্ষক মন্ডলীর তত্ত্বাবধানে সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজড্ কারিকুলাম সমৃদ্ধ, মানসম্পন্ন, ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষার সমন্বয়ে গড়ে ওঠা একটি পূর্ণাঙ্গ, দায়িত্বশীল ও আধুনিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে ‘ইউনুছ খান মেমোরিয়াল কলেজ’ আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে।

‘ইউনুছ খান মেমোরিয়াল কলেজ’ এর উদ্দেশ্য হলো শিক্ষার্থীদেরকে মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন, সচেতন, দায়িত্বশীল সুনাগরিক ও সর্বোপরি আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর ও প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের সাথে টিকে থাকার জন্য যোগ্যতম করে গড়ে তোলা।

দক্ষ ও অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী ছাড়াও বিদ্যালয়ের সার্বিক কার্যক্রম কেন্দ্রীয়ভাবে বাংলাদেশ ডিজিটাল এডুকেশন রিসার্চ লিঃ (বিডিএডুকেশন) দ্বারা নিবিড়ভাবে পরিচালনা করা হয়।

আমার দৃঢ় বিশ্বাস ‘ইউনুছ খান মেমোরিয়াল কলেজ’ এর ছাত্র-ছাত্রীরা অত্র কলেজের আধুনিক ও মানসম্পন্ন শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে জাতি গঠনে গরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে। আমি এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুন্দর ও উজ্জল ভবিষ্যৎ এবং আপনাদের সার্বিক সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করছি।

ধন্যবাদান্তে

প্রফেসর মোঃ আমিরুল ইসলাম
অধ্যক্ষ
ইউনুছ খান মেমোরিয়াল কলেজ
প্রাক্তন অধ্যক্ষ
রংপুর ক্যাডেট কলেজ।